করোনা মহামারির কারণে স্থগিত থাকা উচ্চ মাধ্যমিক বা এইচ.এস.সি, আলিম ও সমমানের পরীক্ষা সরাসরি হচ্ছে না। শিক্ষার্থীদের জে.এস.সি ও এস.এস.সি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে এইচ.এস.সি পরীক্ষার ফল নির্ধারণ করা হবে। আজ বুধবার ৭ অক্টোবর ২০২০ তারিখ দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এম.পি এসব সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন সাংবাদিকদের।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এইচ.এস.সি ও সমমানের পরীক্ষা গ্রহণের জন্য এক বেঞ্চে একজন শিক্ষার্থী বসানো সম্ভব নয়। আবার কেন্দ্র দ্বিগুণ করার মত জনবলও আমাদের নেই। তাই শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা ও সার্বিক দিক বিবেচনায় ২০২০ সনের এইচ.এস.সি পরীক্ষা এবার ভিন্ন পদ্ধতিতে মূল্যায়িত হবে। যেভাবে গ্রহণযোগ্যতা পাবে, তা নিয়ে আমরা বিবেচনা করছি। মন্ত্রী বলেন, এসব বিষয় বিবেচনা করে এ বছর সরাসরি এইচ.এস.সি ও সমমানের পরীক্ষা ভিন্নভাবে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের জে.এস.সি ও এস.এস.সি ফল গড় করে তার ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে। আর এই ফল প্রকাশ করা হবে ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে এ বছর ‘গুচ্ছ পদ্ধতি’ প্রয়োগ করা হবে।

উল্লেখ্যঃ এর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, এইচ.এস.সি পরীক্ষা শুরুর প্রস্তুতি চলছে। সে ক্ষেত্রে প্রতি বেঞ্চে একজন করে শিক্ষার্থী বসিয়ে এই পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তুতি নেওয়া হবে বলে জানা যায়। সর্বপরি, শিক্ষামন্ত্রীর ভাষ্যমতে এবার এইচ.এস.সি পরীক্ষা হচ্ছে না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here