বকেয়া প্রাপ্য
আদেশে (ঙ) ধারায় বলা হয়েছে স্কেল উন্নিতকরণের আদেশ জারির পূর্বের কোন বকেয়া প্রাপ্য হবেন না।

সহকারী শিক্ষকদের ১৩ তম গ্রেডে উচ্চধাপে বেতন নির্ধারণ করার জন্য গত ১২ই আগস্ট ২০২০ ইং তারিখে অর্থ মন্ত্রণালয় একটি আদেশ জারি করেছে। এই আদেশ জারির ফলে প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের উন্নীত বেতন ধাপে মিললে ধাপে এবং ধাপে না মিললে উচ্চধাপে নির্ধারণ করা হবে।

উল্লখ্য যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় গত ৯ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখে সহকারী শিক্ষকদের ১৩ তম বেতন গ্রেডে উন্নীত করার আদেশ জারি করেছিলেন। আইন অনুসারে যেদিন থেকে গেজেট জারী করা হয়েছিল সেদিন থেকেই গ্রেড কার্যকর হবে। তাই প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের ১৩ তম গ্রেড অবশ্যই ৯ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখ থেকে কার্যকর হবে এবং সেদিন থেকে বকেয়াও পাবেন।

কিন্তু  অর্থমন্ত্রনালয়ের উচ্চ ধাপের আদেশের একটি ধারা নিয়ে শিক্ষকরা বকেয়া পাবেন কিনা এটা নিয়ে সংশয়ে আছেন। চলুন দেখে নেই সেই ধারাটি

বকেয়া প্রাপ্য
আদেশে (ঙ) ধারায় বলা হয়েছে স্কেল উন্নিতকরণের আদেশ জারির পূর্বের কোন বকেয়া প্রাপ্য হবেন না।

তাই অনেক সহকারী শিক্ষক আশংকা প্রকাশ করে সামাজিক গণমাধ্যমগুলোতে পোস্ট দিয়ে জানতে চাচ্ছেন যে তারা গত ৯ ফেব্রুয়ারী থেকে বকেয়াসহ বেতন পাবেন কিনা?

সহকারী শিক্ষকরা অবশ্যই ১৩ তম গ্রেডে বকেয়াসহ বেতন পাবেন কারণ এই ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং তারিখেই প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় শিক্ষকদের স্কেল উন্নিতকরনের আদেশ জারি করেছিল। অর্থ মন্ত্রনালয়ের উচ্চ ধাপের আদেশেও গত ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং তারিখে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় কর্তৃক জারিকৃত সহকারী শিক্ষকদের স্কেল উন্নিতকরনের আদেশের স্মারক নং সহ উল্লেখ করা রয়েছে।তাই সহকারী শিক্ষকদের গত ৯ফেব্রুয়ারী থেকে ১৩তম গ্রডে বেতন না পাওয়ার আশংকা করার কোন কারণ নেই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here